বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২১ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
Logo ঈদের ছুটিতেও রক্ষা পাইনি মাদক চোরাকারবারীরা Logo ডিএনসি দিনাজপুর কর্তৃক বিপুল পরিমান গাঁজা উদ্ধার Logo ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর ‘আত্মহত্যা’ শিক্ষক বাবার ক্যাম্পাসের বাসায় Logo চীনের অর্থনীতি কি নিস্তেজ হওয়ার পথে Logo ঈদের ছুটি একদিন বাড়ানোর সুপারিশ আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির Logo ডিএনসি ব্রাহ্মণবাড়িয়া কর্তৃক বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার Logo মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টাঙ্গাইল কর্তৃক বিপুল পরিমান ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ Logo ডিএনসি কুড়িগ্রাম কর্তৃক বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল উদ্ধার Logo মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর ব্রাহ্মণবাড়িয়া কর্তৃক বিপুল পরিমান ইয়াবা উদ্ধার Logo সরকার নির্ধারিত দামে পণ্য বিক্রি না করায় ৩ ব্যবসায়ীকে জরিমানা

রাশিয়াকে ক্রিমিয়া ফেরত দিতে বললেন ম্যাক্রোঁ

Reporter Name / ৮৩ Time View
Update : শনিবার, ১৬ মার্চ, ২০২৪, ৩:১২ অপরাহ্ন
রাশিয়াকে ক্রিমিয়া ফেরত দিতে বললেন ম্যাক্রোঁ
রাশিয়াকে ক্রিমিয়া ফেরত দিতে বললেন ম্যাক্রোঁ

রাশিয়ার ক্রিমিয়া উপদ্বীপসহ ইউক্রেনকে তার হারানো অঞ্চলগুলোর নিয়ন্ত্রণ পুনরুদ্ধার করতে হবে। না হলে কোনো ‘স্থায়ী শান্তি’ আসবে না- এমন দাবি করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

বৃহস্পতিবার ( ১৪ মার্চ) ফ্রান্সের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন ফ্রান্স ২-এ দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এমন দাবি করেন ম্যাক্রোঁ। এ সময় তিনি রাশিয়াকে ফ্রান্সের ‘প্রতিপক্ষ’ হিসেবে উল্লেখ করেন। জোর দিয়ে বলেন, প্যারিস মস্কোর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করছে না বরং রাশিয়া- ইউক্রেন যুদ্ধে কিয়েভকে ‘সমর্থন’ করছে।

 
ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট আরও বলেন, অবশ্যই রাশিয়া আজ প্রতিপক্ষ। ক্রেমলিনের শাসন প্রতিপক্ষ। আমরা রাশিয়াকে আটকাকে সবকিছু করছি। তবে সার্বভৌমত্ব না থাকলে কখনই শান্তি স্থায়ী হবে না। তাছাড়া ইউক্রেনের আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত সীমানা ক্রিমিয়া ফেরত না নেয়া পর্যন্ত শান্তি আসবে না।
 
এদিকে ফরাসি প্রেসিডেন্টের এ মন্তব্য ভালোভাবে নেয়নি রাশিয়া। ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেছেন যে ম্যাক্রোঁ রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বেশি মাথা ঘামাচ্ছেন।
পেসকভ আরও বলেন, হ্যাঁ। রাশিয়া ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ। কারণ ইউক্রেনের সঙ্গে রাশিয়া ভালোভাবেই জড়িয়ে পড়েছে।
 
বেশ কিছুদিন থেকেই রাশিয়া-ইউক্রেন নিয়ে তীক্ষ্ণ মন্তব্য করছেন ম্যাক্রোঁ। ফেব্রুয়ারির শেষের দিকে তিনি মন্তব্য করেছিলেন, ইউক্রেনে ন্যাটো সেনা মোতায়েনের বিষয়টি এখন আর বাদ দেয়া যাচ্ছে না। কিন্তু তার এই প্রস্তাবকে সমর্থন করেনি যুক্তরাষ্ট্রসহ তার মিত্র দেশগুলো। এ বিষয়ে সর্বশেষ সাক্ষাৎকারে তাকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি কোনো উত্তর দিতে রাজি হননি।
 
সূত্র: আর টি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category
Design & Developed by : JEWEL