মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর মাদকদ্রব্য ও অস্র উদ্ধারে প্রসংশনীয় ভূমিকা রাখলেও কখনো কখনো জনরোষ ও হেনস্তার শীকার হতে হয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিশ্ব মহামারি করোনা ভাইরাসের মহাতান্ডবে আজ মানবতা বিপন্ন। দেশের এই ক্রান্তিলঘ্নে মাদক চোরাকারবারীরা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। কিছুতেই থামছে না মাদকচোরা কারবারীদের দৌরাত্ম্য। ঢাল তলোয়ার বিহীন নিরস্ত্র মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, মাদকদ্রব্য ও অস্র উদ্ধারে প্রসংশনীয় ভূমিকা রাখলেও কখনো কখনো অভিযান চালাতে গিয়ে জনরোষ ও হেনস্তার শীকার হতে হয় মাদক চোরাকারবারীদের হাতে। জোরদার করা হয়েছে ডিএনসির বিশেষ গোয়েন্দা নজরদারি।  আবারো ২৪ ঘন্টার ব্যবধানে টেকনাফ বিশেষ জোন, কক্সবাজার, নারায়ণগঞ্জ ও বগুড়ায় বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার।

টেকনাফ বিশেষ জোন
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর টেকনাফ বিশেষ জোনের সহকারী পরিচালক মোঃ সিরাজুল মোস্তফার নেতৃত্বে একটি টিম ২০০০০  (বিশ হাজার) পিস ইয়াবাসহ একজনকে গ্রেপ্তার করে। জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে, শাহ পরীর দ্বীপ এলাকায় ইমান হোসেনের বাসায় অভিযান পরিচালনা করে

তার সহোদর হেলালকে ২০০০০ (বিশ হাজার) পিস ইয়াবাসহ  হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে। আসামীদের বিরুদ্ধে সহকারী পরিচালক মোঃ সিরাজুল মোস্তফা বাদী  হয়ে  মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন- ২০১৮ অনুযায়ী টেকনাফ মডেল থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন বলে আমাদের প্রতিনিধি জানান।

কক্সবাজার
২০ মে ২০২১  মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, জেলা কার্যালয় কক্সবাজারের পরিদর্শক জীবন বড়ুয়ার নেতৃত্বে একটি টিম ৩০০০ ( তিন হাজার) পিস ইয়াবাসহ ২জনকে গ্রেপ্তার করে। জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে, কক্সবাজার সদর মডেল থানাধীন বৈদ্যঘোনা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে পারিজাত ভবনের সামনে হতে মোঃ শফিউল্লাহ (৩২), পিতা- মৃত লাল মোহাম্মদ,  ও মোঃ জসিম উদ্দিন (৪৪), পিতা- মোঃ ফজল আহম্মদকে ৩০০০ ( তিন হাজার) পিস ইয়াবাসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে। আসামীদের বিরুদ্ধে উপপরিদর্শক মোঃ কামরুজ্জামান বাদী হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুযায়ী একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন বলেন জানা যায়।

নারায়ণগঞ্জ
২০ মে ২০২১  মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয় নারায়ণগঞ্জ এর সহকারী পরিচালক সামছুল আলম এর সার্বিক তত্তাবধানে, একটি টিম ৩০ পিস ইয়াবাসহ ১জনকে গ্রেপ্তার করে। জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে, ফতুল্লা মডেল থানাধীন দাপাইদ্রাকপুর দাপা শৈলকুড়াস্থ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১.মো রবিন (২৭) পিতাঃমৃত আক্তার হোসেনকে ৩০ পিস ইয়াবাসহ হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে। আসামীর বিরুদ্ধে পরিদর্শক মোহাম্মদ ওবায়দুল কবির বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন- ২০১৮ অনুযায়ী  ১টি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন বলে আমাদের প্রতিনিধি জানান।

বগুড়া
২০ মে ২০২১ তারিখে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর এর জেলা কার্যালয় বগুড়ার উপপরিচালক মেহেদী হাসান এর সার্বিক তত্তাবধানে, পরিদর্শক জাকির হোসেন এর নেতৃত্বে একটি টিম ৫০ বোতল ফেনসিডিল, চার কেজি গাঁজা ও মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত দুইটি মোটরসাইকেল সহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে। জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে,  শেরপুর গাড়ই বাসস্ট্যান্ডে অভিযান পরিচালনা করে ৫০ বোতল ফেনসিডিল, চার কেজি গাঁজা ও মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত দুইটি মোটরসাইকেলসহ তিনজনকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়। আসামীদের বিরুদ্ধে উপপরিদর্শক আবির হাসান বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুযায়ী একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন বলেন জানা যায়।

এদিকে কুমিল্লার দেবীদ্বারে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের ৬ সদস্যের একটি দল অভিযান চালাতে গিয়ে জনরোষ ও হেনস্তার শীকার হতে হয়েছে।
জানা যায়, বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলার জাফরগঞ্জ গোমতী নদীর ভেরীবাঁধ সংলগ্ন গোদারাঘাট মীর বাড়ির মৃত বজলু মিয়ার বাড়িতে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয় কুমিল্লার পরিদর্শক আবু বকর ছিদ্দিক, গাড়িচালক মো. রফিকুল ইসলাম, সিপাই মো. শরিফুল ইসলাম, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) উত্তম বরন দেবনাথ, সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আবুল কাসেম, সিপাই মিঠুন চন্দ্র রবি দাসসহ ৬ সদস্যের একটি দল মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের স্টিকার লাগানো একটি জিপ নিয়ে জাফরগঞ্জ বাজারে আসেন। পরে তারা মো. রাসেল ইসলামকে খোঁজ করেন। তাকে না পেয়ে তার বৃদ্ধা মা রাফিয়া বেগম ও তার বোন ময়না আক্তারকে চাপ দিতে থাকেন রাসেলকে উদ্ধার করে দিতে। এ সময় তারা ঘরে অভিযান চালিয়ে কয়েক বোতল মদ ও কিছু ইয়াবা খুঁজে পান।

স্থানীয়রা আরো জানান, উপস্থিত লোকজন তাদের ভুয়া ডিবির লোক মনে করে বেধরক মারধর করতে থাকেন। এ সময় ৩ জন পালিয়ে যান। স্থানীয় কিছু লোক এসে জনরোষ থেকে বাকি ৩ জনকে উদ্ধার করে জাফরগঞ্জ গ্রামের পুলিশের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার বাড়িতে নিয়ে যান। দেবীদ্বার-ব্রাহ্মণপাড়া সার্কেলের এএসপি মো. আমিরুল্লাহ বলেন, স্থানীয়দের সাথে ভুল বুঝাবুঝিতে এমনটা ঘটেছে।