ঢাকা গোয়েন্দা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, গাজীপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক: মাদক চোরাকারবারীদের স্পর্দা কত ভয়ানক !  আবারো ডিএনসি, ঢাকা গোয়েন্দা, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, গাজীপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিপুল পরিমান মাদক উদ্ধার।  
(শনিবার) ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, বিভাগীয় গোয়েন্দা কার্যালয় ঢাকার উপপরিচালক রবিউল ইসলাম এর সার্বিক তত্তাবধানে, সহকারী পরিচালক রিফাত হোসেন এর নেতৃত্বে একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে লালবাগ থানাধীণ, ২১ নীলক্ষেত রোডস্থ কিউ জি সামদানী এন্ড কোং পেট্রোল পাম্প এর সামেন রাস্তার উপর অভিযান পরিচালনা করে মো: মাসুদ রানা (৪৮) কে ৩০০ (তিনশত) পিস ইয়াবা, একটি মোবাইল ফোন ও একটি মোটরসাইকেলসহ হাতেনাতে গ্রেফতার করে। অপর অভিযানে ভাটারা থানাধীন কুড়িল ঘাট পাড়াস্থ ক-১৮৬/২ জিদান খাবার হোটেলের সামনে ও ভাটারা থানাধীন ক-১৪০ জোয়ার সাহারা বাজারস্থ আলভী ইরা জেনারেল স্টোর এর সামনে অভিযান পরিচালনা করে ২১০ (দুইশত দশ) পিস ইয়াবাসহ রাসেল (২২) ও মিন্টু মোল্লা (৩৬) কে হাতেনাতে গ্রেফতার করে। আসামীদের বিরুদ্ধে সহকারী পরিচালক রিফাত হোসেন বাদী হয়ে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুযায়ী নিয়মিত মামলা দায়ের করেন।  

এদিকে (রবিবার) ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, জেলা কার্যালয় চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর উপপরিচালক মো: আনিসুর রহমান খান এর সার্বিক তত্তাবধানে, “ক” সার্কেল একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানাধীন বালিয়াডাঙ্গা গ্রামে মোছাঃ রোমেনা বেগম এর বসতঘরে অভিযান পরিচালনা করে ৮ (আট) কেজি গাঁজাসহ মোঃ রোমেনা বেগম ( ২৬), স্বামী- মোঃ মনিরুল ইসলামকে হাতেনাতে গ্রেফতার। আসামীর বিরুদ্ধে উপপরিদর্শক মো: আসাদুর রহমান বাদী হয়ে সদর মডেল থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুযায়ী একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন ।

অন্যদিকে (শনিবার) ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর, জেলা কার্যালয়, গাজীপুর এর উপপরিচালক মেহেদী হাসান এর সার্বিক তত্তাবধানে, গাজীপুর সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট রাফে মোহাম্মদ ছড়া এর নেতৃত্বে একটি টিম গাজীপুর সদর উপজেলার মিরের বাজার, পূবাইল, কাজীপাড়া এলাকায় মোবাইল কোর্ট অভিযান পরিচালনা করে ৬ (ছয়) কেজি গাঁজাসহ ০২ (দুই) জন আসামীকে  গ্রেফতার করে। আসামীদের বিজ্ঞ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও অর্থ দন্ড প্রদান করে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

এছাড়াও (শনিবার) ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২ মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর জেলা কার্যালয় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সহকারী পরিচালক মু: মিজানুর রহমান এর সার্বিক তত্তাবধানে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট অরবিন্দ বিশ্বাস এর নেতৃত্বে আশুগঞ্জ থানার পুলিশ সদস্যদের সমন্বয়ে ঘটিত টাস্কফোর্স একটি টিম আশুগঞ্জ থানাধীন বগইড় এলাকাস্থ হোটেল সুরমা ইনঃ এর উত্তর পাশে ঢাকা – সিলেট মহাসড়কের উপর ঢাকাগামী ইউনিক পরিবহনে অভিযান পরিচালনা করে ৬(ছয়) বোতল Mcdowell’s নাম্বার ওয়ান নামীয় বিলাতী মদ এবং ৩(তিন) বোতল officers Choice Blue বিলাতী মদসহ মোহাম্মদ কামরুল হাসান (২৮), পিতা- আবুল কাউসারকে হাতেনাতে গ্রেফতার করে। আসামীদের বিরুদ্ধে আশুগঞ্জ থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১৮ অনুযায়ী একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করা হয় ।